স্বপ্ন দেখে ছেলেটি

()

স্রষ্টার অপরূপ সৃষ্টিতে গড়া
সেই ছেলেটির-
নয়নে ভিড় করছে স্বপ্নের দল,
বৈচিত্র্যপূর্ণ স্বপ্নের দলগুলো
কখনো স্থিতিরতা নাহি পায়।

নয়নের স্বপ্নগুলো গোল্লাছুট করে বেড়ায়
স্বপ্ন দেখা নাহি যেন শেষ!
সেই স্বপ্নকে কল্পনা করে ভাবে
সেই স্বপ্নপরীকে ছুঁতে পারবে তো!

মননে তার দৃঢ় সংকল্পবোধ;
আরও যে কত স্বপ্নপরীর পাওয়ার গুণে!
একদিন যাবে তো সেই স্বপ্নপরীর কাছে
ধরা দিবে নিজেকে সেই…..

নিশিতে নির্জুম চর্তুদিকে ছেয়ে গেছে
সবাই ক্লান্ত নয়নকে নিদ্রিতায় বিভোর।
সেই ছেলেটিকে-
ঘুমাতে দেয় না স্বপ্নের দলগুলো ;
এক নির্ঘুমহীন প্রহরী ধৈর্যসহকারে
নিয়ে চলে স্বপ্ন পরীর পথে।

সেই ছেলেটিও ছুটে অবিরাম
চলে স্বপ্ন পরীর ঠিকানায়।
ছেলেটি মা-বাবা ভেবে চলে দিবস নিশিতে
পারবে সেই স্বপ্ন পরীর ঠিকানায় পৌঁছাতে।

প্রতি প্রার্থনায় স্বপ্নপরীর পথে
কত পার হয়ে যায় অজস্র দিবস নিশি,
কত পার হয়ে যায় অবিরাম চেষ্টা।
একদিনই পাবে সেই-

কখনো নিশিতে জোনাকি পোকা মিটি মিটি জ্বলে,
কখনো নিশিতে থাকে ঘুটঘুটে অন্ধকাররূপে,
কখনো নিশিতে উভচর প্রাণীর
ঘ্যাঙের ঘ্যাঙে মুখরিত শব্দে ভুবন,
কখনো নিঃশব্দে রজনী কেটে যায়।

তবুও এসবেই হতাশে মগ্নহীন;
সেই ছেলেটি স্বপ্ন দেখে
বাস্তবায়নে দৃষ্টির গোচরে
হেরে যাওয়া পথে নয়।

একদিন সেই মানুষের মতো মানুষ হয়ে
সবার মুখে উজ্জালিত করবে।
দৃঢ়তায় এগিয়ে যাবে সেই-
সমাজ দেশের অগ্রগতিতে।

লেখাটি কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ?

লেখার উপরে এই লেখার মোট রেটিং দেখুন

এখন পর্যন্ত কোনও রেটিং নেই! এই পোস্টটি রেটিং করুন

ব্লগপোষ্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ব্লগার কান্তু শর্মা

অামার নাম কান্তু শর্মা। অামি বর্তমানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কক্সবাজার সিটি কলেজে ব্যবস্থাপনা বিভাগে (২য় বর্ষে) অধ্যয়রত।অামার প্রিয় সখ কবিতা লিখা এবং নিজস্বীয়তায় কিছু লিখা।অবসর সময়ে বই পড়তে ভালো লাগে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।