স্বপ্ন

আমি স্বপ্ন দেখি,
দামাল ছেলেরা জুম্ম জাতির অস্তিত্ব ও জন্মভূমি রক্ষার আন্দোলনে পাহাড় কেঁপে উঠবে,
আত্ম-বলিদানে রক্ষা করবে পাহাড় ও জাতির অস্তিত্ব।
জুম্ম জাতির তোমরা এগিয়ে চল,
দামাল ছেলেরা উঠবে জেগে, ভয় কিসের আর বল!
পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্মদের একদিন আত্মনিয়ন্ত্রণাধিকার প্রতিষ্ঠার হবে।

আমি স্বপ্ন দেখি,
ধুধুক ছড়া থেকে ঘুমধুম পর্যন্ত পুরো জুম্ম জেগে উঠবে।
জুম্ম জাতির তোমরা এগিয়ে চল,
অশুভ শক্তির প্রতিক্রিয়াশীল ও সুবিধাবাদী দালালীপনাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তুলবে।
পার্বত্য চট্টগ্রামে জুম্মদের স্ব-শাসন প্রতিষ্ঠার হবে।

আমি স্বপ্ন দেখি,
পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতৃত্বে –
‘জুম্ম জাতীয়তাবাদ’ আদর্শে চৌদ্দ জুম্ম জাতিসত্তার সমূহে ঐক্যের সুর বাজবে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তির বিরোধী ও জুম্ম স্বার্থ পরিপন্থীদের প্রতিহত করবে।
জুম্মরা প্রকৃত শত্রুদের বিরুদ্ধে আক্রমণ করতে প্রকৃত মিত্রদের সাথে ঐক্য গড়ে উঠবে।
পাহাড় সামরিক শাসন মুক্ত হবে।
প্রতিষ্ঠিত হবে জুম্ম জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, ধর্ম-নিরপেক্ষ, সম-অধিকার ও সামাজিক ন্যায়বিচার।

আমি স্বপ্ন দেখি,
ছাত্র-জুমিয়া কৃষক-ক্ষেত মজুর-মেহনতি মানুষের রাজ পথে পথে হবে জনমিছিল,
অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের মিছিল।
জুম্ম জাতির অস্তিত্ব ও জন্মভূমি রক্ষার্থে –
উচ্চতর লড়াই সংগ্রাম গড়ে উঠবে,
নিপীড়িত-নির্যাতিত জুম্ম জাতিসত্তারসমূহে।

আমি স্বপ্ন দেখি,
জুম্ম জনগণ বেঁচে থাকার জন্য সংগ্রাম করতে শিখবে।
মহান নেতা মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা নীতি-আদর্শ, চিন্তা-চেতনা ছাত্র ও যুব সমাজ হৃদয়ঙ্গম ও ধারণ করবে।
তাঁর দেখিয়ে দেওয়ার লড়াই-সংগ্রামের পথ, নীতি-কৌশল পথে সৈনিক হবে।
মহান বিপ্লবী নেতা মানবেন্দ্র নারায়ণ স্বপ্ন পূরণে ছাত্র-যুব সমাজ দায়িত্ব ও কর্বত্য পালন করবে।

আমি স্বপ্ন দেখি,
পার্বত্য জনসংহতি সমিতির নেতৃত্বে পার্বত্য চট্টগ্রাম সমস্যার সমাধান হবে।
পার্বত্য চট্টগ্রাম ‘বিশেষ শাসন ব্যবস্থা’র প্রাতিষ্ঠানিক রূপ পাবে।
জুম্মদের জয় হবে একদিন নিশ্চয়।

আমি স্বপ্ন দেখি, স্বপ্ন।
স্বপ্নের আশায় বুকের বাঁধি, আশায়।
পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতৃত্বে বৈষম্যহীন ও শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা হবে।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ব্লগার উথোয়াইনু মারমা

I'm student.

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।