মুহাম্মাদ মাসুদ

মুহাম্মাদ মাসুদ (মোঃ মাসুদ রানা)। ১৯৯৫ সালের ১৪ এপ্রিল সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলার এনায়েতপুর থানার চৌবাড়ীয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। পিতা মোঃ লাল মিয়া, মাতা মোছাঃ জাহানারা খাতুন। শিক্ষা জীবনঃ চৌবাড়ীয়া টোকের পাড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পাশ করে স্থল পাকড়াশী ইন্সটিটিউশনে ভর্তি হন। পরবর্তীতে বাড়ির পাশে নতুন স্কুল প্রতিষ্ঠিত হলে ৮ম শ্রেণীতে সৈয়দপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাধ্যমিক পাশ করে ভর্তি হয় খামারগ্রাম মহাবিদ্যালয়ে। ২০১২ সালে ব্যাবসায় শিক্ষা শাখা থেকে পাশ এইচএসসি করেন এবং ২০১৬ সালে মানবিক শাখায় বেলকুচি সরকারি কলেজ থেকে বিএ (ডিগ্রী পাশ কোর্সে) করেন। প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থঃ যৌথভাবে মুক্তচিন্তা (২০১৮) ও নীলপদ্ম (২০১৯ বইমেলা) দন্ত্য 'স' প্রকাশনী থেকে প্রকাশ পায়। গল্পগ্রন্থঃ 'হুমায়ূন হিমু' - বইমেলা (২০২০)।

যৌবন

শরীর আত্মার মাগফেরাত হয় লাশের মাংসপিণ্ড বিক্রিত চড়া দামে যৌবনে পাপের হিসেব থাকে দিনরাত্রি সহবাস করে আলো অন্ধকারে খুনিরা দরদী দীর্ঘশ্বাসে বাঁচে না। শেষ বয়সে মসজিদে ভীড় হয় ঘুমে পাপের চিহ্ন হাউমাউ কাঁদে পিতলের কলসির আলোতে আত্মা ভয়ার্ত ঝিঁঝিঁপোকার ডাকে শরীর শুকিয়ে চৌচির ফজরের অপেক্ষায় লেপ মুড়িয়ে থাকা।

বিস্তারিত পড়ুন

হুমায়ূন হিমু

পেছনের গল্পঃ সর্বপ্রথম ২০১২ সালে একটি কবিতা লিখেছিলাম। প্রথম কবিতাটি খুব বেশি ভালো ছিলো বলে আমার মনে হয় না। তবুও কেন যেন সেই ভুলে ভরা কবিতাটি ‘মুসফিকা স্মৃতি পাঠাগার’ আয়োজিত মেঠোপথ ম্যাগাজিনে প্রকাশ পায়। তখন অবশ্য প্রকাশ পাওয়ার আনন্দ কেমন হয় সে বিষয়েও বোধগম্য ছিলো না। ২০১২ সালের পর থেকে উপন্যাস জগতে ঢুঁ মা-রা। তখন থেকেই উপন্যাস, গল্পের বইয়ের প্রতি আলাদা একটা টান, সম্পর্ক এসে মনের অলিগলির চিপায় চাপায় বীজ …

বিস্তারিত পড়ুন

চড়ুই পাখির বাসা

তখনও ঘুম থেকে উঠিনি। ঘুমের শহরে প্রিয়তমা পরীনিতার হাত ধরে খিলখিলিয়ে হাসাহাসির সন্ধিক্ষণে নিজেরা দুজনেই প্রেমের উত্তাপে মিশে মোমবাতির বাতাসে ঘুরপাক খাচ্ছি। আর কিছু উষ্ণ আবরণের ছোঁয়াচে রোগের হলুদ গন্ধ মেখে এই প্রথম হিমু হিমু স্বভাবের অনুকরণে নিরুৎসাহিত নিদারুণ নিরাগ্রহ মানুষের ভিড়ে হাড়িয়ে যাচ্ছি। বেশ কয়েকবার হিমুর মোবাইল ফোন বেজে উঠলো। আর এটা যে হিমুর মোবাইল সেটা গভীর চিন্তায় মশগুল ঘুমের মধ্যেও অনুধাবন করা যায়। কেননা, হিমুর মোবাইলে “হিমু, আমি …

বিস্তারিত পড়ুন

অসমাপ্ত গল্পের শেষ পর্ব

রিমঝিম বৃষ্টি হচ্ছিল সেদিন। সময়টা ১০ঃ ৩০ মিনিট হবে। হাতে ঘড়ি ছিলো না। পকেটে মোবাইল ছিলো তবে বৃষ্টির কারণে বের করতে পারিনি। সঠিক সময়টা সেজন্য….। হাতে ছিলো ফাইল ব্যাগ। ব্যাগের ভেতর ছিলো সার্টিফিকেট। চাকরির ভাইভা দিতে এসেছি। ব্যস্ত নগরী। কারো দিকে কেউ তেমন করে তাকাচ্ছে না। অফিস টাইম মনে হয় এমনই। বাস থেকে নেমে ঠিকানা খুজছিলাম। এমন সময় কে যেন বলে উঠলো হায় হায়! কথা গুলো আমার খুব কাছে থেকে …

বিস্তারিত পড়ুন

আমাদের বঙ্গবন্ধু

পৃথিবী সৃষ্টির পর থেকে আজ অবধি যুগে যুগে এমন সব ব্যক্তিত্বের আগমন ঘটেছে, যাদের হাত ধরে মানবতার মুক্তির সনদ রচিত হয়েছে। ১,৪৭,৫৭০ বর্গ কিলোমিটারের এই ছোট্ট ভূ-খন্ডটির জন্মের সাথে যার নাম অঙ্গাঙ্গীকভাবে জড়িত তিনি আর কেউ নন সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। গোপালগঞ্জ জেলার মধুমতি নদীর তীরবর্তী টুঙ্গিপাড়া গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে শেখ লুৎফুর রহমান ও সাহেরা খাতুনের ঘর আলোকিত করে ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ (বাংলা …

বিস্তারিত পড়ুন

সাহিত্যরত্ন মুহাম্মদ নজিবর রহমান

বেশকিছুদিন হলো লেখালেখির দিকে ঝুঁকে পড়েছি। মন চাইলে কখনও কখনও লিখে ফেলি ছড়া, কবিতা ও গল্প। যা বিভিন্ন সাহিত্য ম্যাগাজিনে ইতিমধ্যে প্রকাশ পেয়েছে। যৌথ প্রকাশনায় কবিতা গ্রন্থ প্রকাশ হলেও এখনও একক কোন গ্রন্থ প্রকাশ করতে পারিনি। অর্থ সংকট আছে বটে। তবুও আশা করি একদিন না একদিন গ্রন্থ বের করবোই। সাহিত্য ম্যাগাজিনে খুব বেশি যে পরিচিত হয়েছি তা কিন্তু নয়।তবে একথা সত্য যে অনেক সাহিত্যমনা মানুষের সাথে পরিচয় হয়েছে। যারা বাংলা …

বিস্তারিত পড়ুন

একটি চুরির গল্প

ভাই মাফ চাই, ছাইড়া দেন ভাই।ভাই দুইটা পায়ে ধরি ভাই, আর মাইরেন না ভাই,ভাই আমি রোজা রাখছি, আর আমুনা ভাই,,,,,,!!রোজার কথা শুনে থেমে গেলো দু’জন,বাড়ি কই তোর??— কলাবাগান বস্তিতে।–তুই মসজিদ থেকা চুরি করস? তোর কলিজা কত বড়? পাশের লোকটা বললো,ভাই থামলেন কেন? দেন আর কয়ডা, রোজার মাসে চুরি কইরা বেড়ায়, সালারে লাত্থান। তুই চুরি করস আবার কিসের রোজা রাখস রে? মিছাকথার জায়গা পাস না?এই বলেই কান বর়াবর সজোরে আরেকটা থাপ্পড় …

বিস্তারিত পড়ুন

ক্রসফায়ারঃ আধার রাতের গল্প

রবিউল রক্তশূন্য মুখে কাঁপতে কাঁপতে বলল, স্যার আমারে কি মাইরা ফেলবেন? রবিউল যখন প্রশ্নটা করল তখন আমি সিগারেটে সর্বশেষ টান দিচ্ছি। প্রশ্ন শুনে সেকেন্ডের ভগ্নাংশের জন্য থামলাম। তারপর আবার লম্বা করে টান দিয়ে ঠোঁট গোল করে উপর দিয়ে ধোঁয়া ছেড়ে সিগারেট মাটিতে ফেলে বুট দিয়ে ঘষে আগুন নেভালাম। রবিউলের জবাব না দিয়েই বললাম, ফারুক! ওর চোখ বাঁধো। রবিউল নামের মধ্যবয়সী লোকটা এবার চূড়ান্ত ভয় পেয়ে গেল। এতক্ষণ ধরে তার চোখে …

বিস্তারিত পড়ুন

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি চিঠি

প্রিয় অজ্ঞাতনামা শহীদ, পত্রের প্রথমেই স্মরণ করছি নাম না জানা অগনিত লাখো মুক্তিসেনাদের, স্মরণ করছি সেই মা-বাবা, ভাই-বোন, আত্মীয় স্বজনদের, যাদের সোনার মতো ছেলে, বন্ধুর মতো ভাই স্বাধীনতা যুদ্ধে জীবন দিয়েছে। স্মরণ করছি সেইসব মুক্তিযোদ্ধাদের যাঁরা তাঁদের জীবন দিয়ে জয়ী করেছে আমার এই বাংলাকে, রক্ষা করেছে এই বাংলার মা মাটিকে। আমি সালাম এবং শ্রদ্ধা জানাচ্ছি সেই ত্রিশ লক্ষ শহীদদের যাঁদের রক্তের জলে অর্জিত আমাদের লাল সবুজের স্বাধীন পতাকা ও স্বাধীনতা, …

বিস্তারিত পড়ুন

দ্বৈরথ

শৈলন্দ্রের খবর বার্তা পাই না দীর্ঘদিন। জেল থেকে বেরিয়ে সেই যে নিরুদ্দেশ। সু্খেন কাকার সাথেও সাক্ষাৎ নাই,রামকান্তপুরের খেয়া বন্ধ হয়ে গেছে বছর দুই। প্রথমে বাঁশের ব্রীজ উঠল নদীতে,তারপর কংক্রিটের সেতু। খেয়াঘাটের আর দরকার রইল না,নৌকাখানা সুখেনের উঠানে চিত্ করে রাখা হলো। আমি সে বৎসর পার্টির কাজে ব্যস্ত ছিলাম,পুলিশি হয়রানি তাই অবধারিতই ছিল। দুদিন গাঢাকা দিয়েছিলাম রামকান্তপুর,সুখেন কাকার বসতিতে আমার অবস্থান কাকপক্ষীরও জানার কথা নয় ভেবে। সুখেন কাকার সাথে আমার আর …

বিস্তারিত পড়ুন
error: আমার কলম কপিরাইট আইনের প্রতি শ্রদ্ধশীল সুতরাং লেখা কপি করাকে নিরুৎসাহিত করে। লেখার নিচে শেয়ার অপশন থেকে শেয়ার করার জন্য আপনাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।