ট্যাগ সংরক্ষণাগার

র‍্যাবের স্থায়ী পার্বত্য ব্যাটালিয়ন হতে পারে পার্বত্য চট্টগ্রামে অশান্তি সৃষ্টির নতুন সমীকরণ

||র‍্যাবের স্থায়ী পার্বত্য ব্যাটালিয়ন হতে পারে পার্বত্য চট্টগ্রামে অশান্তি সৃষ্টির নতুন সমিকরণ|| পুলিশ অধিদপ্তরের আওতাধীন র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) সাংগঠনিক কাঠামোতে একটি স্থায়ী পার্বত্য ব্যাটালিয়নের(র‍্যাব-১৫) জন্য ৬৭৭ জনের জনবল অনুমোদন করা হয়েছে। গত বুধবার(০৬/১১/২০১৯) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের উপসচিব আজীজ হায়দার ভূইয়া স্বাক্ষরিত এক সরকারী আদেশে একথা জানানো হয়। উক্ত ব্যাটালিয়নের জন্য বিভিন্ন পদবীর মোট ৬৭৭টটি পদ সৃজন, ৮৪টি যানবাহন, এবং ১৫টি সরঞ্জামাদি(সিসিটিভি) টিওএন্ডই-তে অন্তর্ভূক্ত করণে সরকারী মঞ্জুরি জ্ঞাপন করা …

বিস্তারিত পড়ুন

পার্বত্য চট্টগ্রামে কার উন্নয়ন, কীসের উন্নয়ন?

পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকারের উন্নয়নের বুলি শুনতে শুনতে যেন কান ঝালাপালা হয়ে গেছে। যেন উন্নয়ন হলেই পার্বত্য চট্টগ্রামে সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। প্রতি বছর হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হচ্ছে বলেও সরকারের দিক থেকে হার হামেশাই বলা হচ্ছে। কিন্তু আদতে কি তাই? আসুন একটু তলিয়ে দেখা যাক- ১। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুদত্ত চাকমা বলেছেন- “পার্বত্য চট্টগ্রামের তিনটি জেলায় দারিদ্র্যের হার এখনো ৪৮ শতাংশের ওপর রয়ে গেছে”। গত ৫ …

বিস্তারিত পড়ুন

পার্বত্য চট্টগ্রামে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক সভা নিয়ে কিছু কথা

বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন গত ১৬ ও ১৭ অক্টোবর পার্বত্য চট্টগ্রাম সফর করে আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক বৈঠক ও আলোচনা সভা করেছেন। ১৬ অক্টোবর তিনি হেলিকপ্টারযোগে প্রথমে খাগড়াছড়ির রামগড়ে যান এবং সেখানে একটি থানা ভবন উদ্বোধন করেন। এরপর ঐ দিন বিকালে তিনি রাঙামাটিতে গিয়ে তিন জেলার সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকজনের সাথে আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। পরদিন একই বিষয়ে তিনি রাঙামাটি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে সরকারি দলের এমপি-মন্ত্রী, তিন …

বিস্তারিত পড়ুন

পাকিস্তান আমল,প্রেক্ষিত পার্বত্য চট্টগ্রাম

বিংশ শতকের চল্লিশ দশকের মাঝামাঝি সময়ে পাকিস্তান আন্দোলন যখন জোরদার হতে থাকে তখন ত্রিপুরা রাজ্যের শেষ মহারাজা বীরবিক্রম উত্তরপূর্ব ভারতের উপজাতি অধ্যুষিত এলাকাগুলো নিয়ে একটি স্বতন্ত্র রাষ্ট্র গঠনে উদ্যোগী হন।কিন্তু তিনি সফল হতে পারেন নি।পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন রাজা এবং নেতাসহ অন্যান্য উপজাতি অঞ্চলের নেতৃবৃন্দ তাকে সমর্থন করেনি।১৯৪৭ সালের মে মাসে মহারাজার মৃত্যু হয় এবং তাঁর মৃত্যুর সাথে সাথে সেই উদ্যোগেরও মৃত্যু ঘটে।অতপর মুসলীম লীগের দ্বিজাতিতত্ত্ব এবং মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর দাবি …

বিস্তারিত পড়ুন

অন্যায়ের প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য ছাত্র সমাজ সংগঠিত হোন

পার্বত্য চট্টগ্রামের ইতিহাস অন্যায়-অবিচার-শোষন-বঞ্চনার ইতিহাস। পার্বত্য চট্টগ্রামের আদিবাসী জাতিসত্তাসমূহের ওপর ৪৭ এ ভারতবর্ষ দেশ ভাগের পর পাকিস্তানি শাসকরা শোষন-বঞ্চনা-নির্যাতন চালিয়েছিল এবং ৭১ এ বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভের পর শুরু হয় উগ্র বাঙালি জাতীয়তাবাদের শোষন-বঞ্চনা-নির্যাতন এবং যা এখনো চলমান। পার্বত্য চট্টগ্রামের ইতিহাসের পাতা খুললে দেখতে পাবেন, পাহাড়ী জনগণের ওপর গণহত্যা, নারী ধর্ষণ, লাভ জিহাদ, বিচার বর্হিভুত হত্যা ইত্যাদি ঘটনা রয়েছে যা মানবাধিকার লঙ্ঘন সম্পর্কিত এবং সাম্প্রদায়িক এবং বর্ণবাদী সম্পর্কিত বহিঃপ্রকাশ। বাংলাদেশ সংবিধানে …

বিস্তারিত পড়ুন
error: আমার কলম কপিরাইট আইনের প্রতি শ্রদ্ধশীল সুতরাং লেখা কপি করাকে নিরুৎসাহিত করে। লেখার নিচে শেয়ার অপশন থেকে শেয়ার করার জন্য আপনাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।