ট্যাগ সংরক্ষণাগার

বুদ্ধের মুখনিঃসৃত বাণী : ধম্মপদের যুগ্নগাঁথা

ধম্মপদ বুদ্ধ ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ বই। হিন্দু ধর্মে গীতা, খ্রীষ্ট্রান ধর্মে বাইবেল এবং ইসলাম ধর্মে কোরান যেমন গুরুত্বপূর্ণ বই হিসেবে নিজ ধর্মের অনুসারীরা মানেন ঠিক তেমনি বুদ্ধ ধর্ম ও দর্শন অনুসারীদের জন্য ধম্মপদ অতীব মূল্যবান। গৌতম বুদ্ধ দুঃখ এবং দুঃখ থেকে মুক্তির পথ বর্ণনা করেছেন, শান্তির বার্তা দিয়েছেন মানবকুলের জন্য। বলা হয়ে থাকে বুদ্ধের মুখনিঃসৃত বাণী হলো ধম্মপদ। পালি সুত্তপিটকের পাঁচটি নিকায় অথবা অংশ; তার পঞ্চমটির নাম খুদ্দক নিকায়। খুদ্দক …

বিস্তারিত পড়ুন

গৌতম বুদ্ধের জীবন ও কর্ম : বৌদ্ধ ধর্মের প্রথম পাঠ (১ম পর্ব)

আনন্দিত লাগছে যে, মহৎ একটি কাজে হাত দিতে পেরে। এই লেখাটি একটি অনুবাদকর্ম। গৌতম বুদ্ধের জীবন ও কর্ম নিয়ে লেখা দু’চারটিখানি কথা নয়। মূলত থাইওয়ান বুদ্ধিস্ট এডুকেশনাল ফাউন্ডেশন থেকে প্রাপ্ত কে.শ্রী ধম্মানন্দ ভিক্ষুর লেখা একটি বই “What Buddhists Believe” পড়ার পর মনে হলো মহামতি গৌতম বুদ্ধের মূল জীবন ও কর্ম বইটিতে যেভাবে আছে এর চেয়ে স্পষ্ট এবং সহজ করে কোথাও বর্ণনা করা হয়নি আগে। বিভিন্ন অধ্যায়ে বিভক্ত করে ভালোভাবে বিশ্লেষণ …

বিস্তারিত পড়ুন

গৌতম বৌদ্ধ কি ছিলেন ?

বৌদ্ধ দর্শনে ঈশ্বরের কোন স্থান নেই। বস্তুত বুদ্ধদেবের জীবনের চরম লক্ষ্য ও ব্রত ছিল জগতে যে দুঃখ-দুর্দশা হচ্ছে তা থেকে মানুষের মুক্তি লাভ করা। তিনি তত্ত্ববিষয়ক আলোচনা পরিহার করে চলতেন। বুদ্ধদেব কর্মনিয়মকে সকলের উপরে স্থান দিয়েছেন। কারণ তিনি মনে করতেন কর্মের দ্বারাই জগতের দুঃখের যুক্তিযুক্ত ব্যাখ্যা দেওয়া যায়। কর্মের ফলেই জীবের উদ্ভব। বস্তু এবং চিন্তা সবই কর্মফল। সুতরাং সৃষ্টিকর্তা রূপে ঈশ্বরের অস্তিত্বে বিশ্বাসের কোন প্রয়োজন নেই। তাছাড়া বৌদ্ধ দর্শন হল …

বিস্তারিত পড়ুন
error: আমার কলম কপিরাইট আইনের প্রতি শ্রদ্ধশীল সুতরাং লেখা কপি করাকে নিরুৎসাহিত করে। লেখার নিচে শেয়ার অপশন থেকে শেয়ার করার জন্য আপনাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে।